Cyclone

ঘূর্ণিঝড়ের আদ্যোপান্ত

কিছুদিন পর পরই টেলিভিশন কিংবা রেডিওতে শুনে থাকবেন “প্রবল শক্তি নিয়ে বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে আঘাত হানতে যাচ্ছে ঘূর্নিঝড় অমুক, ঘূর্নিঝড় তমুক”। সে সব ঘূর্নিঝড়ের নামও হয় ভীষণ রোমান্টিক। কারো নাম তিতলী, আবার কারো নাম বুলবুল। যে ঘূর্ণিঝড়ে মানুষের জান যায় যায় অবস্থা, সেখানে এসব নামকরণের কারণ কী তা বিস্তারিত তুলে ধরার জন্যই এই পোস্ট। এই পোস্টে বাংলাদেশে আঘাত হানতে যাওয়া যে কোন ঘূর্ণিঝড় এর লাইভ আপডেট উইজেটও যোগ করা হয়েছে। নিচের বক্স থেকে দেখে নিতে পারেন বাংলাদেশের আশেপাশে থাকা কোন ঘূর্ণিঝড়ের রিয়েল টাইম আপডেট।

অদ্ভুত নামকরণের সার্থকতা

ঘূর্ণিঝড়ের নাম শোনার পরই প্রথম যে কথা মনে পড়ে তা হচ্ছে “এমন অদ্ভুত নাম ক্যান?”। প্রথমে এ প্রশ্নের উত্তর দেয়া যাক। ঘূর্ণিঝড়ের নামকরণ শুরু হয় আটলান্টিক মহাসাগরের ঘূর্ণিঝড় থেকে। যেসব ঝড়ের গতিবেগ ঘন্টায় ৩৯ মাইলের বেশি হতো তাদের বিভিন্ন নাম দিয়ে সম্মান জানানো হত। আবার ঝড়ের গতিবেগ ঘন্টায় ৭৪ মাইলের বেশি হলেই তাকে হারিকেন বা সাইক্লোন বা টাইফুন ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হতো। 'হারিকেন', 'টাইফুন' ও 'সাইক্লোন' - সবই গ্রীষ্মকালীন ঝড়। কিন্তু বিভিন্ন অঞ্চলে এগুলো ভিন্ন নামে পরিচিত।

উত্তর আটলান্টিক মহাসাগর ও উত্তর-পূর্ব প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে ঘূর্ণিঝড়ের নাম 'হারিকেন'। কিন্তু একই ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ উত্তর-পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরে সৃষ্টি হলে তার নাম হয়ে যায় 'টাইফুন'। আর দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগর ও ভারত মহাসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড়কে বলা হয় 'সাইক্লোন'। তাই আমাদের এ অঞ্চলের সব ঘূর্ণিঝড়ের নামই হবে সাইক্লোন অমুক বা সাইক্লোন তমুক। কখনোই বলা হবে না হারিকেন অমুক অথবা টাইফুন তমুক।

এসব সাইক্লোনের নামকরণ করে WMO (World Meteorological Organization). WMO'র অধীনে মোট ১১ টি সতর্কতা কেন্দ্র আছে। প্রতিটি দেশ বেশ কিছু নাম বেছে নিয়ে সংস্থার আঞ্চলিক ট্রপিক্যাল সাইক্লোন কমিটির কাছে চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য পাঠায় এবং সেখানে অনুমোদনের পরই এই নামগুলো ব্যবহার করা হয়। আমাদের এই অঞ্চলের আঞ্চলিক ট্রপিক্যাল সাইক্লোন কমিটির অধীনে রয়েছে আটটি দেশ - বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, মায়ানমার, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, ওমান এবং থাইল্যান্ড। অ্যারাবিয়ান সাগর আর বঙ্গোপসাগরের সব ঘূর্ণিঝড়ের নামকরণ এদের মাধ্যমেই হয়ে থাকে।

Shadnan Mahmud's Blog

এখন লিস্ট ৮ এর নাম অনুযায়ী নামকরণ করা হচ্ছে। এই পোস্ট লেখার সময় বাংলাদেশে আঘাত হানতে যাচ্ছে সুপার সাইক্লোন 'বুলবুল', এর নাম পাকিস্তানের দেয়া। এরপর ভারত মহাসাগর বা আরব সাগরে আবার কোন সাইক্লোন হলে এর নাম হবে শ্রীলঙ্কার দেয়া নাম 'পবন', এবং এরপরের সাইক্লোনের নাম হবে থাইল্যান্ডের দেয়া নাম 'অম্ফন'।

সম্প্রতি ঘূর্ণিঝড় ও আবহাওয়ার নতুন সতর্ক সংকেত প্রণয়ন করা হয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের "খাদ্য ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রনালয়" কর্তৃক প্রণিত ঘূর্ণিঝড় ও আবহাওয়ার নতুন সতর্ক সংকেত ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন নিচের বাটনে।

ডাউনলোড করুন

16 Comments

  1. ইনফরমেশনের জন্য ধন্যবাদ। তবে ইনফরমেশনের সোর্স লিংক গুলো পেলে ভালো হত।

Leave a Comment